শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর, আন্দোলন করবে চরমোনাই

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশ, আগস্টে না খুললে আন্দোলন করবে চরমোনাই

শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রনালয় প্রস্তুত আছে, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবার আশায় আছি।
পরিস্থিতি ঠান্ডা হলেই খুলে দেয়া so হবে কলেজ স্কুল সহ বন্ধ থাকা সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। because
শিক্ষামন্ত্রী আরো জানান করোনার প্রকোপ শুরু থেকেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন ভাবেই নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন but
আমাদের যে আমরা কতটা অল্প সময়ে তারাতাড়ি প্রতিষ্ঠান খুলে দিতে পারি। because

আপাতত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার চিন্তার সাথে আরো চিন্তা আছে but যে প্রথমত ছাত্র ছাত্রী and
তাদের অভিভাবক সহ শিক্ষক and প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত সবার স্বাস্থ সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে।
দ্বিতীয়ত ছাত্র ছাত্রী দের শিক্ষার and ধারা অব্যাহত রাখতে হবে যাতে কোনোক্রমেই তারা পিছিয়ে না পরে। because
গত বুধবার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুব মহিলা লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় শিক্ষামন্ত্রী দিপুমনি এই কথা বলেন।

তার ভিত্তিতেই তাদের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করা হচ্ছে। স্কুলের শিক্ষার্থীদেরও আগের রোলে পরের ক্লাসে তুলে দেওয়া হয়। but
গতবছর এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না হওয়ায় শিক্ষার্থদের এসএসসি ও জেএসসির ফলাফলের গড় করে মূল্যায়ন ফল প্রকাশ করা হয়।

এর আগে ঢাকার শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে সচিব সম্মেলন সভা অনুষ্ঠিত হয় ১৮ আগস্ট,
সেখানে গনভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। because
কনফারেন্সে শেখ হাসিনা অন্যান্য so আলোচনার সাথে করোনার এই পরিস্থিতি বেশ ভয়াবহ so
করোনার প্রকোপ কমে আসা মাত্র যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার তাগিদ দিয়ে বলেন সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেন।

শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি বলেন প্রধানমন্ত্রীর কথা

এই বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি বলেন আমরা তৎপর আছি প্রধানমন্ত্রীর দেয়া নির্দেশ অনুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার যাবতীয় প্রস্তুতি নেয়া হবে।
এদিকে আগস্ট মাসে স্কুল খোলা because না হলে কঠিন আন্দোলন হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন ইসলামি because

সভায় শিক্ষা সচিব তাদের পরিকল্পনার কথা অবহিত করেছেন জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, “শিক্ষা সচিবও বলেছেন,
তারা একটা প্ল্যান প্রোগ্রাম করছেন। গতকাল তারা একটা বৈঠকও করেছেন আইসিটির সাথে। দ্রুতই তারা পাবলিকলি বিষয়টি জানাবেন।
যত দ্রুত সম্ভব খুলে দেওয়া যাতে যায়। ছাত্রদের মধ্যে ১৮ বছরের বেশি বয়সী যারা আছেন, তাদেরকে কুইকলি যাতে ভ্যাকসিনেটেড করা হয়।”

“শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো খুলে দেওয়া দরকার এবং খুব দ্রুত সেটার ব্যবস্থা নিতে হবে। এটা শুধু বিশ্ববিদ্যালয় বলে না, because
আমাদের স্কুলগুলোও খোলা দরকার। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এনইসির সম্মেলন কক্ষে সচিব সভায় যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন,

আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর ও শায়েখে চর মোনাই মুফতি ফয়জুল করিম। because
গত ১৮ আগস্ট দুপুর নাগাদ সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেন দলটি।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ বরিশাল মহা নগর কতৃক আয়োজিত হওয়া এই মানব বন্ধনে সভাপতি হিসেবে বক্তব্য দেন শায়েখ মুফতি ফয়জুল করিম।

বক্তব্যে তিনি বলেন সব কিছু স্বাভাবিক ভাবে থাকলেও করোনার দোহাই দিয়ে স্কুল কলেজ সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা কেবল একটি চক্রান্ত ছাড়া আর কিছু না।
শায়েখ চরমোনাই আরো বলেন লঞ্চ বাস ট্রেন বাজার মল মার্কেট দোকান সব কিছু চলছে দিব্যি স্বাভাবিক অবস্থায় ভাল ভাবে but

তবে স্কুল কলেজের ক্ষেত্রে ৫১৯ দিন ধরে বন্ধ থাকাটা কোন যুক্তির মধ্যে পরে??
এই সময় মুফতি ফয়জুল করিম চলতি আগষ্ট মাসের মধ্যে ক্বওমি মাদ্রাসা সহ সব স্কুল কলেজ খুলে দেয়ার প্রতি আহবান জানান।
যদি না হয় তবে দেশ ব্যাপি কঠিন গন আন্দোলন গড়ে তুলে প্রতিষ্ঠান খুলার জন্য বাধ্য করা হবে।

About admin

Check Also

গ্রামের খাল বিলে নেই প্রাকৃতিক মাছের সমারোহ!

একসময় গ্রামের মানুষ মাছ কিনে খেত না। রান্না শুরুর আগে কেউ আঞ্চলিক মাছ ধরার ছোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *